Home » ষষ্ঠ ধাপে ২১৮ ইউপিতে চলছে ভোটগ্রহণ

ষষ্ঠ ধাপে ২১৮ ইউপিতে চলছে ভোটগ্রহণ

কর্তৃক মেহেরপুর রিপোর্ট
141 ভিউজ

দেশের ২২ জেলার ৪২ উপজেলা ষষ্ঠ ধাপে মোট ২১৮ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ, যা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। এবার ২১৬টি ইউপিতেই ভোটগ্রহণ হচ্ছে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে-ইভিএমে। মাত্র দু’টি ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হচ্ছে।

এদিকে সকাল থেকেই ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের আসতে দেখা গেছে। তবে শীতের প্রকোপ বেশি হওয়ায় শুরুতে ভোটকেন্দ্রে ভিড় কিছুটা কম। তবে, বেলা বাড়ার সাথে সাথে বাড়ছে ভোটার উপস্থিতি। নারী ভোটারদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। নির্বাচনে সহিংসতা ঠেকাতে কেন্দ্রগুলোতে মোতায়েন রয়েছে আনসার, বিজিবি, র‍্যাব ও পুলিশ।

এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ৫ ধাপেই সংঘর্ষ-সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। ঝড়েছে প্রাণও। তাই ষষ্ঠ ধাপের ভোট নিয়েও কোথাও কোথাও তৈরি হয়েছে শঙ্কা। এমন পরিস্থতিতে ষষ্ঠ ধাপের নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।

এর আগে রোববার সকাল থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয় নির্বাচনি সরঞ্জাম। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে সব ধরণের পদক্ষেপ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এদিকে নির্বাচনে যে কোনো ধরনের সহিংসতা ঠেকাতে কেন্দ্রগুলোতে মোতায়েন থাকবে আনসার, বিজিবি, র‍্যাব, পুলিশ।

ইসি সূত্র জানায়, এই নির্বাচনে মোট ভোটার ৪১ লাখ ৮২ হাজার ২৬৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২১ লাখ ১৪ হাজার ৭২০ ও নারী ভোটার ২০ লাখ ৬৭ হাজার ৫৩৭। এছাড়াও ছয়জন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন। এসব ভোটার দুই হাজার ১৮৬টি কেন্দ্রের ১৩ হাজার ৩০৫টি কক্ষে ভোট দেবেন।

নির্বাচনের এ ধাপে সারাদেশে বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১১ হাজার ৬০৪ জন প্রার্থী। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে এক হাজার ১৯৯ জন। সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে দুই হাজার ৫৫৯ এবং সাধারণ সদস্য পদে সাত হাজার ৮৪৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ষষ্ঠ ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ১৪৪ প্রার্থী। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১২ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৩২ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ১০০ জন।

নির্বাচনী এলাকায় ইতোমধ্যে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ৫৪ ঘণ্টার জন্য এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে। এছাড়া শুক্রবার মধ্যরাত থেকে এসব এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণাও বন্ধ হয়েছে। আইন অনুযায়ী, ভোটগ্রহণ শুরুর ৩২ ঘণ্টা আগে নির্বাচনী প্রচারকাজ বন্ধ করতে হয়।

চলমান ইউপি নির্বাচনে ইতোমধ্যে পাঁচ ধাপের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। গত ২১ জুন ও ২০ সেপ্টেম্বর প্রথম ধাপের দুই দফায় ৩৬৯টি এবং ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে ৮৩৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে ১০০০ ইউপিতে, চতুর্থ ধাপে ২৬ ডিসেম্বর ৮৩৬ ইউপিতে এবং পঞ্চম ধাপে গত ৫ জানুয়ারি ৭০৮ ইউপিতে ভোট গ্রহণ হয়েছে। ৩১ জানুয়ারি ষষ্ঠ ধাপে ২১৮ ইউপিতে ভোটগ্রহণ হবে। সপ্তম ও শেষ ধাপে ১৩৮ ইউপিতে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

০ মন্তব্য
0

আরও রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন